স্ত্রীকে বিষের ইনজেকশন প্রয়োগে হত্যা করল পল্লীচিকিৎসক

 

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ঃঃ
ইনজেকশনের মাধ্যমে বিষ প্রয়োগের দ্বিতীয় স্ত্রী এক সন্তানের জননী আমেনাকে হত্য করেছে পল্লী চিকিৎসক স্বামী। ঘটনাটি (১১ মার্চ) বৃহস্পতিবার রাতে সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার নলতার ইন্দ্রনগর গ্রামে ঘটে। এ ঘটনায় শ্যামনগরের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে নলতার কাজলা গ্রামে ঘরজামায় মনিরুল ইসলাম, নওশের মেম্বারের কন্যা মনিরুলের ১ম স্ত্রী জান্নাতুল বেগম ও প্রথম স্ত্রীর ভাই নওশেরর পুত্র আরিজুল ইসলামকে আসামি করে কালিগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা হয়েছে। ঘটনার রাতে পল্লী চিকিৎসক মনিরুলকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহতের পিতা নুরুজ্জামান বলেন, গত ২ বছর আগে নলতার কাজলা গ্রামের ঘর জামায় পল্লী চিকিৎসক মনিরুলের সাথে প্রেমের সম্পর্কের জেরে বিয়ে হয় ইন্দ্রনগর গ্রামের নুরুজ্জামানের কন্য আমেনার। কিন্তু স্বামী মনিরুল আমেনাকে স্ত্রীর স্বীকৃতি না দেয়ায় মনিরুল, প্রথম স্ত্রী বিলকিস ও শ্যালক আরিজুলের সাথে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে আমেনার সাথে স্বামী মনিরুল পুনরায় ভাল সম্পর্ক গড়ে তুলে গত জানুয়ারি মাসে একটা পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়ে তার কোন ভরণ-পোষণ দিতো না। দলে গত ৯ই মার্চ ডাক্তার মনিরুল আমেনার বাবার বাড়িতে গিয়ে কোন কোম্পানি প্যাকিং ছাড়া নাম স্বর্বস্বহীন একটি ইনজেশন পুশ করে। ইনজেকশন পুশ করার পরের দিন অসুস্থ হয়ে গেলে দ্রুত সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজে আমেনাকে ভর্তি করা হয়।

দীর্ঘক্ষণ মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় মৃত্যুবরণ করে। আমেনার মৃতদেহের সুরতহাল প্রস্তুত করে এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্যে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এবিষয়ে কালিগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার হুসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চত করেছেন।