সিংগাইরে পদ্মা সেতুর শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে আনন্দ র‍্যালি

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
মানিকগঞ্জের সিংগাইর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের আয়োজনে আজ সকাল ৯ টায় উৎসবমুখর পরিবেশে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আক্রাম হোসাইন এর নির্দেশনায় বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ হতে এক বর্ণাঢ্য আনন্দ র‍্যালি বের করা হয়।

বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক একেএম আরিফুর রহমান,শারীরিক শিক্ষা শিক্ষক, সিংগাইর উপজেলা স্কাউট লিডার,সাবেক জাতীয় ক্রীড়াবিদ,সাংবাদিক ও কলামিস্ট মো. আলতাফ হোসেন,বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক শাজাহান দুলাল,আজিজুর রহমান বাদশা, হারুনুর রশিদ,তপন কুমার সাহা,মো. মোহাব্বত হোসেন, সুবল চন্দ্র সাহা,শাহিনুর আক্তার,শারমিন সুলতানা,রিনা দাস,কাজি আব্দুল খালেক।আরো উপস্থিত ছিলেন আলোক হোসেন, ফরিদ খান, জিল্লুর রহমান,জাহাঙ্গির আলম,শামিম খান,মামুন শেখ,এনামুল হক, আশিকুর রহমান,মো.সিরাজুল ইসলাম, আব্দুল্লাহ আল নোমান,সাইফ সুজন,শায়লা আক্তার,আশরাফুল আলম,। অন্যান্যদের মধ্যে মো.ছৈনুদ্দিন,মো.আতাউর ও বিদ্যালয়ের স্কাউট গ্রুপসহ সকল শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীরা এ র‍্যালিতে অংশ নেয়। র‍্যালিটি উপজেলা চত্বরে যেয়ে উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত আনন্দ মিছিলে অংশ নিয়ে উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে সিংগাইর বাসস্ট্যান্ড হয়ে আবার উপজেলা চত্বরে ফিরে আসে।

অবশেষে স্বপ্নের পদ্মাসেতু পাড়ি দিয়ে শুভ উদ্বোধন করেছেন প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ শনিবার(২৫ জুন) বেলা ১১ টা ৫০ মিনিটের দিকে অতিথিদের সঙ্গে নিয়ে পদ্না বহুমুখী সেতু প্রকল্প সড়ক পথের শুভ উদ্বোধন করেন।নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেই দৃশ্যমান হয়ছে স্বপ্নের পদ্মসেতু। সেখানে টোল দিয়ে মাওয়া প্রান্তে উদ্বোধনী ফলক ও ম্যুরাল-১ উম্মোচন করে মোনাজাতে অংশ নেন। পদ্মাসেতুর(মূল সেতু)দৈর্ঘ্য ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার।দুই প্রান্তের উড়াল পথ(ভায়াডাক্ট) ৩ দশমিক ৬৮ কিলোমিটার।সব মিলিয়ে সেতুর দৈর্ঘ্য ৯ দশমি ৮৩ কিলোমিটার।পদ্মা সেতু প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা।