নেত্রকোনায় তালাবদ্ধ ঘরে সন্ধান মিললো হাত পা বাঁধা লাশ উদ্ধার

নেত্রকোনা প্রতিনিধিঃ
নেত্রকোনায় তালাবদ্ধ ঘর থেকে হাত-পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায় জোছনা বেগম (৭০) নামের এক বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘরের ভেতরে আলমারি খোলা এবং এর ভেতরে থাকা জিনিসপত্র এলোমেলো ছিল। গত সোমবার রাত সোয়া ১১টার দিকে শহরের নিউটাউন বিলপাড় এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পুলিশের ধারণা, শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। জোছনা বেগম শহরের নিউটাউন বিলপাড় এলাকার মৃত আবুল মুন্সীর স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, জোছনা বেগমের তিন ছেলের মধ্যে এক ছেলে বগুড়ায়, আরেক ছেলে বরিশালে থাকেন। বড় ছেলে মিল্টন মোল্লার সঙ্গে নিউটাউন বিলপাড়ের বাসায় বসবাস করতেন তিনি। প্রায় ১০ দিন আগে মিল্টন ব্যক্তিগত কাজে বরিশালে যান। মিল্টনের স্ত্রীও চলে যান জেলার আটপাড়ায় বাবার বাড়িতে। এ কারণে ১০-১২ দিন ধরে বাসায় একা ছিলেন জোছনা বেগম। গত সোমবার ছেলে মিল্টন সারা দিন ফোনকল করেও মায়ের সঙ্গে কথা বলতে পারছিলেন না।

পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে তার মামা ফেরদৌস দরজার তালা ভেঙে ঘরে ঢুকে হাত-পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায় মেঝেতে জোছনার লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। এ সময় ঘরের ভেতরে জিনিসপত্র এলোমেলো অবস্থায় ও আলমারি খোলা ছিল। পুলিশ জানায়.লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

শিরোনাম