ধামরাইয়ে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকা অনশন করায় গলাটিপে হত্যার চেষ্টা

 

ধামরাই প্রতিনিধি ঃঃ
ঢাকার ধামরাইয়ে বিয়ের দাবিতে অনশন করা এক মাদ্রাসারছাত্রীকে গলাটিপে হত্যার চেষ্টা করেছে প্রেমিক দিদার। এমন খবর পেয়ে ছাত্রীর বাবা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

এদিকে বিষয়টি মীমাংসার জন্য স্থানীয় মাতব্বররা উঠে পড়ে লেগেছে বলে জানা গেছে। ধামরাইয়ের ইশাননগর গ্রামের খালেক মিয়ার লম্পট ছেলে দিদার (২৫) বিয়ের প্রলোভন দিয়ে প্রায় আড়াই বছর ধরে গোপন সম্পর্ক করে আসছিল। এ সময়ে তাদের মধ্যে একাধিকবার গোপন অভিসার হয়। এতে ওই ছাত্রী অন্তঃসত্ত্ব্বা হয়ে পড়ে। পরে তাকে বিয়ের আশ্বাসে কৌশলে ধামরাইয়ের একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে গর্ভপাত ঘটানো হয়।

এভাবেই চলে তাদের সম্পর্ক। বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানানোর ফলে প্রেমিকা-প্রেমিকের বাড়িতে অনশন শুরু করে। আর তাতেই তেলে বেগুনে জ্বলে উঠেন দিদার। শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে।হত্যা চেষ্টার পর গা-ঢাকা দিয়েছে দিদার। অপর দিকে প্রেমিকার বাবা মেয়ের হত্যা চেষ্টার খবর শুনে সে অসুস্থ্য হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত প্রেমিকার অনশন অব্যাহত আছে।