গফরগাঁওয়ে হোমিও চিকিৎসককে হত্যা,এলাকায় উত্তেজনা

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ
ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে হারুন অর রশিদ (৫৫) নামে এক হোমিও চিকিৎসককে তার নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কুপিয়ে হত্যা করেছেন রুবেল মিয়া (৩৮) নামে এক যুবক।সোমবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টা নাগাদ উপজেলার পাগলা থানাধীন পাইথল ইউনিয়নের গয়েশপুর বাজারে এই ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় উত্তেজিত জনতা ঘাতক রুবেলকে গণপিটুনি দিয়ে বাড়িতে আগুন দিয়েছে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে পাগলা থানা পুলিশ ৪টি ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে।নিহত হারুন অর রশিদ ওই ইউনিয়নের গোয়ালবর গ্রামের মৃত খুরশেদ আলমের ছেলে। গয়েশপুর বাজারে বসবাস করেন। সেখানেই তিনি ফিরোজা হোমিও হল নামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে দীর্ঘ দিন ধরে হোমিও চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছিলেন। ঘাতক রুবেল একই ইউনিয়নের নেওকা গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত সৈনিক শাহাব উদ্দিনের ছেলে।

পাগলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ খায়রুল বাশার সংবাদ মাধ্যমকে জানান,‘ঘাতক রুবেল ও তার মা বিউটি আক্তারকে উত্তেজিত জনতা গণপিটুনি ও বাড়িতে আগুন দিয়েছে। পুলিশ তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে পাঠায়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে পুলিশ পাহারায় ময়মনসিং মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে । এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ জনতা ঘাতকের বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশের দুই এস আই,রফিকুল ইসলাম,মদন চন্দ্র ও কনস্টেবল রফিকুল আহত হয়েছে।

শিরোনাম